Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

ইসলাম ধর্ম পবিত্র ধর্ম, এটা মাথায় রাখতে হবে: মমতা

Closed

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতে চলছে লোকসভা নির্বাচন। প্রথম ধাপে বেশ কিছু জায়গাতে ভোট নেয়া হয়ে গেলেও এখনো বাকি রয়েছে আরো ছয়টি ধাপ। ফলে তুমুল বেগে চলছে নির্বাচনী প্রচারণা। এদিক থেকে পিছিয়ে নেই পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূলও।

আজ মঙ্গলবার ইটাহারে এমনই এক নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, ইসলাম ধর্ম পবিত্র ধর্ম, এটা মাথায় রাখতে হবে। ধর্ম নিয়ে কোনো ধরনের ভাগাভাগি চলবে না।

আজ বালুরঘাট কেন্দ্রের প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের হয়ে আজ মঙ্গলবার ইটাহার ও বুনিয়াদপুরে সভা করেন মমতা। ইটাহারের জনসভায় মমতা যেমন তৃণমূল সরকারের কাজের খতিয়ান ও উন্নয়ন তুলে ধরেছেন, তেমনি বিভিন্ন ইস্যুতে বিজেপি সরকারের সমালোচনা করেন তিনি।

সমর্থকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, দেশকে রক্ষা করতে গেলে দিল্লির সরকার বদলে দিন৷ তৃণমূলকে ভোট দিন। কারণ বিজেপি বলছে, তারা বাংলাতেও নাগরিকত্ব বিল করবে। এটা কী জানেন? পাঁচ বছরের জন্য আপনাকে বিদেশী করে দেবে৷ তারপর কী গ্যারান্টি আছে যে আপনি নাগরিকত্ব ফিরে পাবেন। তারা দাবি করছে, এনআরসি করবে। আমি তাদেরকে বলছি আগে এন টা ছুঁয়ে দেখ, তারপর আরসি করবে।

বিজেপির বিরুদ্ধে ধর্মের নামে রাজনীতি করার অভিযোগও তোলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। তার কথায়, বিজেপির আমলে কোনও উন্নতি হয়নি। ধর্মের নামে শুধু রাজনীতি করে বেড়ায় ওরা।

বাংলার ব্যাপারে তিনি বলেন, নিজের জীবন বাজি রাখতে রাজি, কিন্তু ভাগাভাগি চলবে না। কারণ বাংলার সংস্কৃতি এটা নয়। মুসলমানদের ব্যাপারে তিনি স্পষ্টভাষায় বলেন, ইসলাম ধর্ম পবিত্র ধর্ম এটা মাথায় রাখতে হবে। ধর্মের নামে কোনো ভাগাভাগি চলবে না। হিন্দু, ইসলাম, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন ধর্ম থাকবে, তবেই তো দেশ।

প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার থেকে বাক্স নামানো নিয়ে সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনে গিয়েছিল কংগ্রেস। সেই ‘রহস্যজনক’ বাক্স নিয়েও বিজেপিকে খোচা দেন মমতা। তিনি বলেন, টাকা ছড়িয়ে নির্বাচন জেতা যায় না।

আমরা চৌকিদার চাই না, গান্ধী, আম্বেদকরের মতো যোগ্য নেতা চাই। সরকার গড়তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে তৃণমূল। আগামী দিনে উত্তরপ্রদেশে এবং বাংলা মিলেই সরকার গড়বে।

Previous
Next