Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

চবির ডিন অফিসে ছাত্রলীগের তালা

চবির ডিন অফিসে ছাত্রলীগের তালা

Closed

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন অফিসে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একাংশ। ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রমে অনিয়মের অভিযোগ তুলে গতকাল এ ঘটনা ঘটায় তারা।জানা গেছে, গত ২৪ নভেম্বর কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের অধীন ‘বি’ ইউনিটের (সংগীত) কোটায় মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী জনি মং মারমাকে তুলে নিয়ে যায় ছাত্রলীগের একাংশ। তবে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে তিনি পরে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পান। গতকাল সোমবার ভর্তি হওয়ার জন্য বিশ^বদ্যালয়ে তিনি এলে ছাত্রলীগের কর্মীরা কোটায় অনিয়ম হচ্ছে দাবি তুলে কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এ সময় ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেনকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের অধীন ‘বি’ ইউনিটের (সংগীত) কোটায় ভর্তি স্থগিত করা হয়েছে।এ ব্যাপারে কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সেকান্দর চৌধুরী আমাদের সময়কে বলেন, অপহরণের অভিযোগ পেয়ে এক শিক্ষার্থীকে পুনরায় মৌখিক পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি দেয় প্রশাসন। পরে ওই শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার জন্য আসতে চাইলে ছাত্রলীগের উচ্ছৃঙ্খল কতিপয় কর্মী আমার অফিসে তালা দেয় এবং ডেপুটি রেজিস্ট্রারকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।এদিকে সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় কলা অনুষদ ডিনের বিরুদ্ধে অনয়িমের অভিযোগ এনেছে ছাত্রলীগ। তাদের দাবি, উপজাতি কোটায় মেধা তালিকায় ৭৬তম হওয়া শিক্ষার্থীকে ভর্তির সুযোগ না দিয়ে ৭৯তমকে ভর্তির করার চেষ্টা করা হয়।এ ব্যাপারে চবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এএইচএম ফজলে রাব্বি সুজন বলেন, অনিয়মের খবর পেয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ডিন অফিসে তালা দেন। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে তালা খুলে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, ডিন অফিসে তালা ও অনিয়মের ঘটনা খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে প্রশাসন। তিন দিনের ভেতর তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

Previous
Next