Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

ডা. মন্টি   নোয়াখালীতে গড়ে তুলবেন ‘বৃদ্ধনিবাস’ ও ‘ফ্রি ডক্টরস চেম্বার’

ডা. মন্টি নোয়াখালীতে গড়ে তুলবেন ‘বৃদ্ধনিবাস’ ও ‘ফ্রি ডক্টরস চেম্বার’

Closed

বিশেষ প্রতিবেদক
বয়স আর কত হবে? ৩০ পেরিয়েছে বছর দুয়েক আগে। এ বয়সে কোটিপতির সন্তানরা যখন ভোগ বিলাসে ব্যস্ত থাকে কিংবা উড়ে বেড়ায় হাওয়াতে। ঠিক তারই ব্যতিক্রম কোটিপতির সন্তান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি। সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্ম নেওয়া মন্টি শিশুকাল থেকেই মানব প্রেমিক। যেখানেই মানবতা বিপন্ন সেখানেই কোন না কোন ভাবে ডা. মন্টির সরব উপস্থিতি। ২০১৫ সালে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা মরহুম ডা. সিরাজুল ইসলামকে হারান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি। পিতার অনুপস্থিতিতে বিশাল পারিবারিক ব্যবসা বানিজ্যের দায়িত্ব ভার গ্রহন করেন তিনি। দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সুমনা গ্রুপ অফ কোম্পানীজের চেয়ারম্যান ডা. মন্টি শত ব্যস্ততার মাঝেও মানবসেবা চালিয়ে যাচ্ছেন বিরামহীন ভাবে। বিভিন্ন অসহায় ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানকে অর্থনৈতিক সহায়তার পাশাপাশি নিজের পিতার প্রতিষ্ঠিত ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের উদ্দ্যেগে বছরের পর বছর অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করে ব্যাপক আলোচিত হয়েছেন। এই মেডিকেল কলেজের উদ্দ্যেগে দেশের বিভিন্ন স্থানে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পসহ চিকিৎসার নানাবিদ উদ্দ্যেগ গ্রহন করা হয়ে থাকে। ডা. মন্টির মানবসেবা ও মানবিকতার হাজারও দৃষ্টান্ত রয়েছে। এর মধ্যে সাম্প্রতিক সময়ে উল্লেখযোগ্য হলো চাটখিলের মানসিক রোগে আক্রান্ত গৃহবধূ রিমা ও মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বিরল রোগে আক্রান্ত কিশোর আব্বাস শেখ। এই দুই রোগীর সংবাদ তিনি জেনেছিলেন বিভিন্ন সংবাদ মিডিয়া থেকে। চাটখিলের গৃহবধূ রিমাকে জ্বীন বা ভুতে ধরেছে এমনটি মনে করে স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন ৪ বছর যাবৎ পায়ে শিকল বেধে ঘরে আটকিয়ে রাখে। এমন সংবাদ সোস্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে ডা. মন্টির নির্দেশে গত ১১ই জানুয়ারী ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। দীর্ঘ একমাস চিকিৎসার পর গৃহবধূটি পূর্ন সুস্থতা লাভ করে ১৩ই ফেব্রুয়ারী স্বামীর ঘরে ফিরে যায়। এই গৃহবধূর পুরো চিকিৎসা ব্যয় করেন ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি। গৃহবধূর চিকিৎসার বিষয়টি পুরো চাটখিল সহ নোয়াখালীতে ব্যাপক আলোচিত হয়েছিল। বিরল রোগে আক্রান্ত মাদারীপুরের ১৩ বছরের কিশোর আব্বাস শেখের অসুস্থতার সংবাদ বিভিন্ন সংবাদ মিডিয়ার মাধ্যমে বিদেশে বসে পান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি। তাৎক্ষণিক তার নির্দেশে তারই মালিকানাধীন ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল কতৃপক্ষ ২২ ফেব্রুয়ারী তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। এখনও তার চিকিৎসা চলছে তার অবস্থা উন্নতির দিকে। ডা. মন্টির এরকম অসংখ্য মানবিক ঘটনা আছে উল্লেখ করার মতো।
সম্প্রতি বিশিষ্ট শিল্পপতি, দানবীর ও সমাজসেবক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি তাঁর পৈত্রিক নিবাস নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার গোমাতলী গ্রামের ডা. সুলতান মাহমুদ ভবনে বৃদ্ধনিবাস ও ফ্রি ডক্টরস চেম্বারের কার্যক্রম শীঘ্রই উদ্বোধন এর ঘোষণা দিয়েছেন। তার উদ্যোগে ‘ডা. সিরাজুল ইসলাম বৃদ্ধনিবাস’ ও ‘ডা. সিরাজুল ইসলাম ফ্রি ডক্টরস চেম্বার’ নামক প্রতিষ্ঠানদ্বয়ের মাধ্যমে জেলার হতদরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের থাকা, খাওয়াসহ বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান করা হবে যাতে করে জেলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান ও চিকিৎসার মত মৌলিক চাহিদা পূরন হয়। এপ্রিল-২০১৮ থেকে অত্র প্রতিষ্ঠানদ্বয়ের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করার সার্বিক প্রস্ততি গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, এই অঞ্চলে সুবিধাবঞ্চিত ও অসহায় বৃদ্ধদের জন্য তেমন কোন সেবা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠে নাই, আমি মনে করি বৃদ্ধনিবাসের মাধ্যমে মানবিক কার্যক্রম ফলপ্রসু হবে এবং বৃদ্ধরা তাদের জীবনের শেষ দিনগুলি ঝামেলাহীন ভাবে কাটাতে পারবেন।
উল্লেখ্য যে, নোয়াখালীতে বৃদ্ধদের কল্যাণে এই ধরণের উদ্যোগ সর্বপ্রথম ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি গ্রহণ করেছেন। ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি’র দাদার নামে প্রতিষ্ঠিত ‘ডা. সুলাতান মাহমুদ কল্যাণ ট্রাস্ট’-এর মাধ্যমে প্রান্তিক সুবিধাবঞ্চিত ও হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বিভিন্ন মানবিক ও সামাজিক কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠিত বৃদ্ধনিবাস ও ফ্রি ডক্টরস চেম্বার প্রতিষ্ঠানদ্বয় অতীতের ধারাবাহিকতায় সম্পূর্ণ মানবিক ও সামাজিক দায়বদ্ধ কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।
বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপটে শিল্পপতি কিংবা রাজনীতিবিদদের মাঝে স্বার্থবিহীন মানবপ্রেম বা সামাজিক কর্ম দেখা যায়না। কিন্তু সম্পূর্ন মানবিকতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে মাটি ও মানুষের টানে ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি’র এসব সামাজিক কর্মগুলি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে যুগের পর যুগ।

Previous
Next