Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

ত্বকের যত্নে যা খাবেন, যা খাবেন না

ত্বকের যত্নে যা খাবেন, যা খাবেন না

Closed

ত্বকের জন্য খাবার বেছে খাওয়া খুবই জরুরি। আপনার খাবারে পানির পরিমাণ, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং তৈলাক্ততা এসব সরাসরি ত্বকের ওপর প্রভাব ফেলে।

তাই নানা রকম স্কিন ট্রিটমেন্ট, স্পা-ফেসিয়াল এবং প্রসাধনচর্চার আগে জেনে নিন ত্বকের জন্য কোনটি ভালো আর কোনটি খারাপ।
ত্বক ভালো, সুস্থ, সতেজ ও চিরতরুণ রাখতে আপনি যা খাবেন তাতে প্রচুর পানি থাকা উচিত। সে সঙ্গে চাই নানা ধরনের ভিটামিন। এ লেখায় থাকছে তেমন কয়েকটি বিষয়ে পরামর্শ।
যেসব খাবার ত্বকের জন্য ভালো
টমেটো
টমেটোতে যে লাইকোপিন নামে উপাদান আছে, তা ত্বককে উজ্জ্বল রাখে। আর ভিটামিন সি ত্বকের রুক্ষতা দূর করে। গবেষকেরা একমত যে প্রচুর ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় নিয়মিত প্রতিদিন টমেটো আপনার ত্বকে বলিরেখা পড়তে দেবে না।
শসা
মুখ-চোখের ওপর শসার ফালি রাখা পারলারে স্পা বা ফেসিয়ালের নৈমিত্তিক বিষয়। কিন্তু জানেন কি যে শসা রোজ খেলে আপনার ত্বক যথেষ্ট আর্দ্র হয়ে ওঠে এবং ত্বক পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করে? শসায় সিলিকা থাকায় এটি উজ্জ্বল ও পরিষ্কার ত্বক বজায় রাখতে সাহায্য করে, ত্বকের কোলাজেনকে রক্ষা করে এবং টান টান রাখে। সবুজ খোসাসহ শসা এতে আরও বেশি সাহায্য করবে।
লেবু
প্রতিদিন এক গ্লাস পানিতে একটা লেবু চিপে সেই পানি পান করলে যকৃত পরিষ্কার হয়। আর ত্বক ভালো রাখতে যকৃতের ভূমিকা অপরিসীম।
গাজর
গাজরে আছে প্রচুর ভিটামিন এ বা বিটা ক্যারোটিন। প্রতিদিন এক কাপ কাঁচা গাজর আপনার ত্বককে আলাদা এক উজ্জ্বলতা দেবে এবং সূর্যালোকের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচাবে। ত্বকের রংয়ে লালচে আভা এনে দেবে এই গাজর।
যেভাবে খাবেন
বিজ্ঞানীরা বলছেন যে ত্বকের জন্য এসব ফলমূল বা সবজির উপকার পেতে এগুলো কাঁচা খাওয়াই ভালো। এতে এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান ও ভিটামিনের গুণাগুণ অটুট থাকে। আর যদি রান্না করতেই হয় তবে একটু ভাপ দিয়ে নিন। ওপরের খাবারগুলো ছাড়াও প্রতিদিন খানিকটা বাদাম, কাঁচা যেকোনো ফল, ক্যাপসিকাম এবং প্রচুর পানি- এই হলো ত্বকের তারুণ্যের রহস্য।
ত্বকের জন্য বর্জনীয়
চিনি
রক্তে চিনি বা শর্করার পরিমাণ বেড়ে গেলে গ্লাইকেশন প্রোডাক্ট তৈরি হয় দেহে, আর তা ত্বকের কোলাজেন তৈরিতে বাধা দেয়। ফলে ত্বক তার টান টান সতেজতা হারাতে থাকে। ত্বক তাড়াতাড়ি বুড়িয়ে যেতে থাকে। তাই ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে হলে মিষ্টি কিন্তু খেতে হবে কম।
ভাজা-পোড়া
অতিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার, যেমন ভাজা-পোড়া খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়। কেননা, এরা টক্সিন তৈরি করে, ত্বকে নীরব প্রদাহ সৃষ্টি করে। ফলে ত্বকের সুস্থতা ব্যাহত হয়।
ক্যাফেইন
অনেকেই বলেন, চা খেলে কালো হয় গায়ের রং। কথাটা পুরোপুরি সত্যি না হলেও একেবারে মিথ্যেও নয়। চা ও কফিতে যে ক্যাফেইন আছে তা শরীরকে দ্রুত পানিশূন্য করে, কর্টিসোল হরমোনের নিঃসরণ বাড়ায়, ঘুমের চক্রকে ব্যাহত করে। ফলে ত্বক ক্লান্ত ও বুড়োটে দেখায়। অ্যালকোহলও তাই, এটি ত্বকের আর্দ্রতা কমিয়ে দেয়। রক্তনালির ওপর মন্দ প্রভাব ফেলে, চর্বি বাড়ায়। ফলে ত্বক অনুজ্জ্বল দেখায়। তাই চা-কফিতে পরিমিত হতে হবে।

ohyb

Previous
Next