Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

দাগনভূঞায় ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপারের গলিত লাশ উদ্ধার

Closed
by December 9, 2014 ফেণী

দাগনভূঞা সংবাদদাতা : দাগনভূঞা পৌরসভার রামানন্দপুর গ্রাম হতে পুলিশ গতকাল সোমবার দুপুরে দুইটি গলিত লাশ উদ্ধার করেছে। লাশ গুলো হলো জহিরুল ইসলাম (৩৯) ও মুক্তার হোসেন (৩৫)। পুলিশ জানায়, পৌরসভার রামানন্দপুর গ্রামের সুরুজ মিয়ার বাড়ির সামনের বালির স্তুপ থেকে দুগন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে বালি খুঁড়ে লাশ দুটির সন্ধান পায়। লাশগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। তাদের পকেটে পাওয়া পরিচয়পত্রের সূত্র ধরে দাউদকান্দি থানায় যোগাযোগ করে লাশ চিহ্নিত করে। উদ্ধারকৃত লাশ কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার জামালপুর গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে ট্রাক চালক জহিরুল ইসলাম (৩৯)ও চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলার পূর্ব কলস ভাঙ্গা গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে ট্রাকের হেলপার মুক্তার হোসেন (৩৫)। গত ৩ ডিসেম্বর ট্রাকের চালক ও হেলপার বালুভর্তি ট্রাক নিয়ে মহাসড়ক দিয়ে নোয়াখালী যাচ্ছিলেন। স্বজনরা মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন ভাবে যোগাযোগ করে তাদের কোন হদিস না পেয়ে কুমিল্লার দাউদকান্দি থানায় নিহত জহিরুল ইসলামের ভাই আরিফ হোসেন বাদী হযে সাধারণ ডায়েরী করেন। যাহার নং ৯৮। দাউদকান্দি থানার এস আই মোশারফ হোসেন জানান গত ৩০ নভেম্বর ট্রাকটি চট্টগ্রামের পাহাড়তলি এলাকায় পাওয়া গেলেও নিখোঁজ ড্রাইভারের সন্ধান পাওয়া যায়নি। পুলিশের ধারনা, পথিমধ্যে দূবৃর্ৃৃত্তরা তাদের হত্যা করে ট্রাক ছিনতাই করে লাশ দাগনভূঞায় বালু চাপা দেয়।
দাগনভূঞা থানার (ওসি) আবুল ফয়সল, ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারের গলিত লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতদ্বয়ের পরিচয় মিলেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দুইটি ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Previous
Next