Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

দাগনভূঞায় স্বামীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এক অসহায় নারীর

দাগনভূঞায় স্বামীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এক অসহায় নারীর

Closed
by December 9, 2014 ফেণী

DSC01318
দাগনভূঞা সংবাদদাতা : দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিণ চন্ডিপুর গ্রামের রোকশানা আক্তার ফারহানা নামের এক অসহায় নারী প্রতারক স্বামীর বিরুদ্ধে গত ২৩ নভেম্বর থানার অভিযোগ দায়ের করেন।
ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচর উপজেলার চরমজিদ মোহাম্মদপুর এলাকার খুরশিদ মাঝি বাড়ীর মৃত সামছুল হকের ছেলে ইমাম হোসেন এমরানের সাথে দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিণ চন্ডিপুর গ্রামের আইযুব আলীর মেয়ে রোকশানা আক্তার ফারহানার বিয়ে হয়। দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে তাদের কোল জুড়ে দুই সন্তানের আগমন ঘটে। গত ২১ নভেম্বর কেনাকাটায় কথা বলে ফারহানাকে তার স্বামী নোয়াখালী মাইজদী শহরে নিয়ে জিম্মি করে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে দুটো একশ টাকার অলিখিত সাদা স্ট্যাম্পে, একটি সাদা কাগজে এবং কাবিনের বালাম বইতে স্বাক্ষর করে নেয় প্রতারক এমরান। এর পর তালাক দিয়েছে মর্মে জানায় স্ত্রীকে এবং ভাইয়ের সহযোগীতায় এক কাপড়ে দুবাচ্চা সহ প্রতারিত এই নারীকে দাগনভূঞার দক্ষিণ আলীপুর গ্রামের থনারখাল নামক স্থানে নানার বাড়ী রেখে যায়। এ ঘটনায় স্বামী এমরান ও দেবর রাশেদ কে আসামী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। আসামী এমরান দাগনভূঞা বাজারের ফাজিলের ঘাট রোডস্থ আরবি প্লাজায় প্রাইম ব্যাংকের গার্ড পদে কর্মরত রয়েছে। মামলার তদন্ত কারী অফিসার থানার এস.আই গোলাম হক্কানী জানায়, অভিযোগ পাওয়ার পর সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে খোঁজ নেয়া হয়েছে। ছুটিতে থাকার কারণে প্রধান আসামীকে পাওয়া যায়নি। তবে ব্যাংক ম্যানেজার ওই গার্ডকে থানায় হাজির করবেন বলে আশ্বস্থ করেন।

Previous
Next