Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

নোয়াখালীতে শত্রুতায় নারীকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা

Closed

নোয়াখালী সদর উপজেলার অশ্বদিয়া ইউনিয়নে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মর্জিনা আক্তার (৪০) নামে এক নারীকে কুপিয়ে গুরত্বর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের হামলায় আরো দুই সহদোর আহত হয়।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বক্তারপুর গ্রামের মোস্তফা মিয়ার বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত ওই নারী স্থানীয় মোস্তফা মিয়ার মেয়ে।

আহত মর্জিনার ছোট ভাই গোলাম মাওলা নয়ন বলেন দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় আবদুর রাজ্জাকের ছেলে সাজ্জাত, মোহাম্মদ আলীর ছেলে মঞ্জুর আলী ও সেকান্তর মিয়ার ছেলে গিয়াস উদ্দিনের সাথে জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার রাতে ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন স্থানীয় সন্ত্রাসী সুমনকে ভাড়া করে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে মোস্তফা মিয়ার বাড়িতে প্রবেশ বসতঘরে ভাংচুর চালিয়ে নয়নের উপর হামলার চেষ্টা করে। এসময় নয়নের বড় বোন মর্জিনা ও খুকি সন্ত্রাসীদের বাঁধা দিলে সন্ত্রাসীরা মর্জিনাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। সন্ত্রাসীরা ঘরের মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীদের পিটুনিতে গোলাম মাওলা নয়ন ও তার ছোট বোন খুকিও আহত হয়।

খবর পেয়ে সুধারাম থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় গুরত্বর আহত মর্জিনাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে মর্জিনা হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের ডাক্তার ইকবাল হোসেনের চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানান মর্জিনার কপালে কোপসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সুধারাম থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) সুধন চন্দ্র দাস হামলায় আহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান- প্রতিপক্ষের সাথে জায়গা-জমি সক্রান্ত বিরোধে এ ঘটনা ঘটেছে। ক্ষতিগ্রস্তরা লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous
Next