Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

পরশুরামে নামমাত্র মূল্যে সিএনজি, বাস, ও ইমা ষ্ট্যান্ড ইজারা নিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা

Closed
by February 25, 2015 ফেণী

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীর পরশুরামে সিএনজি, বাস, ও ইমা পরিবহন ষ্টেশান দরপত্র আহবান করায় গত ৪ বছরের ন্যায় এবারও নামমাত্র মুল্যে দিয়ে ইজারা নিয়েছেন পরশুরাম উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইয়াছিন শরীফ মজুমদার, সাধারন সম্পাদক সফিকুল হোসেন মহিম, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক এনাম। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পরশুরাম পৌরসভা গত ৫ ফেব্র“য়ারী পৌর এলাকার ৬টি হাট-বাজার ইজারার দরপত্র আহবান করে। কিন্তু স্থানীয় একাধিক ঠিকাদার দরপত্র ক্রয় করতে চাইলেও সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা দরপত্র ক্রয়ে বাধা প্রদান করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। কয়েকজন দরপত্র ক্রয় করলেও সিন্ডিকেট নেতারা পৌর কার্যালয়ে দরপত্র জমা দিতে বাধা প্রদান করেছেন। গতকাল বুধবার দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ছিল। গত ৪ বছর ধরে ওই তিন ছাত্রলীগ নেতা পরশুরাম বাস, সিএনজি ও ইমা পরিবহনের ষ্ট্যান্ড ইজারা নিয়ে থাকেন। গত বছর নেতারা সাড়ে তিন লাখ টাকায় নামমাত্র মুল্যে সিএনজি ষ্টেশান ইজারা নিয়ে তারা স্থানীয় এক লাইন ম্যানের কাছে পুনরায় ইজারা দিয়ে ১৮ লাখ টাকা লাখ লাভ করেন। চলতি বছর ও একই ভাবে নামমাত্র মুল্যে দরপত্র জমা দিয়েছেন বলে কয়েকজন ঠিকাদার অভিযোগ করেছেন। অপরদিকে বর্তমান ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতারা সিএনজি ও ইমা ষ্ট্যান্ড ইজারা নিতে আগ্রহ দেখানোর পর থেকে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে বর্তমান কমিটির নেতাদের বিরোধ দেখা দেয়। এই নিয়ে একাধিক বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটেছে।
সূত্রে জানা গেছে, ইয়াছিন শরীফ মজুমদার, মহিম, এনাম সিএনজি ও ইমার লাইন ম্যান জাহাঙ্গিরের কাছে প্রতি মাসে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে পুনরায় ইজারা দিয়ে দিয়েছেন ওই পরিবহন খাত থেকে বছরে প্রায় ১৮ লাখ দেন জাহাঙ্গির। একই ভাবে তরকারী ও মাংস বাজার ও নিয়েছে অপর যুবলীগ নেতা মামুন ও সুজন। পরশুরাম উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইয়াছিন শরীফ মজুমদার জানান, নিয়ম মেনেই তারা সিএনজি, ইমা ও বাস ষ্ট্যান্ড ইজারা নিয়েছেন।

Previous
Next