Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

প্রধানমন্ত্রীর হুশিয়ারীর পরও ফেনীতে উন্নয়নে বাধা সোনাগাজী উপজেলার গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের প্রায় অর্ধকোটি টাকা ফেরৎ গেছে

প্রধানমন্ত্রীর হুশিয়ারীর পরও ফেনীতে উন্নয়নে বাধা সোনাগাজী উপজেলার গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের প্রায় অর্ধকোটি টাকা ফেরৎ গেছে

Closed

10404378_1629742180616611_8357535879831628078_n

বিশেষ প্রতিবেদক : টাকা ছাড় হওয়ার শেষদিনে ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের প্রায়৬৮ লাখ টাকার টিআর ও কাবিখা প্রকল্পের টাকা ফেরত চলে গেছে। স্থানীয় সাংসদ হাজী রহিম উল্যাহর নামে বরাদ্দকৃত প্রকল্প কমিটির সভাপতিরা বাধার কারনে যথা সময়ে ফরম দিতে না পারায় অর্থ ছাড় সম্ভব হয়নি।
জানা যায়, সাংসদ রহিম উল্যাহর অনুকুলে দ্বিতীয় ও তৃতীয় কিস্তিতে ৬৭ লাখ ৮৬ হাজার ১৩৪ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এই টাকা ছাড় করার শেষ দিন ছিল গতকাল মঙ্গলবার। প্রকল্পের সভাপতিরা অভিযোগ করেছেন , গতকাল সকাল ৯ টা থেকে সাংসদ রহিম উল্যাহ বিরোধী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হিরনের নেতৃত্বে যুবলীগ, ছাত্রলীগের ১৫-২০ জন তাদের কে উপজেলা কার্যালয়ে অবস্থিত পিআইওর দপ্তরে ডুকতে দেয়নি।
কেউ কেউ ডুকার চেষ্টা করলে দেশীয় অগ্র দিয়ে তাদের উপর হামলা করে প্রকল্পের ফরম চিনিয়ে নেন। সাংসদ রহিম উল্যাহ জানান, সোনাগাজীর সকল উন্নয়নকে ব্যাহত করার চেষ্টা চলছে। এরই অংশ হিসেবে সিন্ডিকেট নেতা নিজাম হাজারী অনুসারীরা নেতা কর্মীদের (প্রকল্পের লোকজন) ফরম জমা দিতে দেয়নি। তারা সোনাগাজী বাসীকে উন্নয়ন বঞ্চিত করতে চায়। উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা লূৎফুন নাহার জানান, সময়মত প্রকল্পের কাগজপত্র জমা না হওয়াই অর্থ ছাড় সম্ভব হয়নি।উল্যেখ্য, সাংসদ রহিম উল্যাহ নামে বরাদ্দকৃত টিআর কাবিখার ২য় কিস্তির ৩৬ টন চাউল সোনাগাজী ফেনী সড়ক থেকে চিনিয়ে নেয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেলি কনপারেন্সে ফেনী জেলা প্রশাসক কে বলেন, উন্নয়ন কাজে বাধা প্রদান কারীকে কোন ছাড় নয়।

Previous
Next