Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

মালয়েশিয়ার মাদ্রাসায় আগুন কি নাশকতা?

মালয়েশিয়ার মাদ্রাসায় আগুন কি নাশকতা?

Closed

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের মাদ্রাসায় ভয়াবহ অগ্নিকা-ে ২৩ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের বয়স ১১ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে। ঘটনাটি নাশকতামূলক ছিল বলে পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ভোরে কুয়ালালামপুরের তাহফিজ দারুল কোরআন ইত্তেফাকিয়া নামের ওই মাদ্রাসায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। গত দুই দশকের মধ্যে এটি সবচেয়ে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা। পুলিশ বলছে, হতাহত ব্যক্তিরা মাদ্রাসার থাকার ঘরে আটকা পড়েছিল। তারা যাতে বের হয়ে যেতে না পারে, সে জন্য জানালাগুলো বাইরে থেকে ধাতব বস্তু দিয়ে আটকে দেওয়া ছিল। কুয়ালালামপুরের পুলিশপ্রধান অমর সিং এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রান্নাঘর থেকে দুটি গ্যাস সিলিন্ডার এনে রাখা হয়েছিল। মাদ্রাসার ছাত্রদের মধ্যে রেষারেষির জের ধরে পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, তারা হত্যার জন্যই এমনটা করেছে। তাই জড়িত ব্যক্তিদের হত্যা মামলার মুখোমুখি করা হবে। গ্রেপ্তার কিশোরদের সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এই মাদ্রাসায় ৫ থেকে ১৮ বছর বয়সীরা পড়ালেখা করে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তারাও কিশোর। এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ভয়াবহ কিশোর অপরাধের বিষয়টি সামনে নিয়ে এসেছে।

Previous
Next