Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

সেনবাগে ব্যবসায়ী হত্যা গ্রেফতার-১, 	 আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি

সেনবাগে ব্যবসায়ী হত্যা গ্রেফতার-১, আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি

Closed

সেনবাগ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি: নোয়াখালীর সেনবাগে পোল্টী ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম (৬২) কে নৃশংস হত্যার ঘটনার সাথে জড়িত ছালা উদ্দিন (৩৮) নামের এক কিলারকে গ্রেফতার করেছে সেনবাগ থানা পুলিশ। সে বীজবাগ ইউপির কাজিরখিল গ্রামের আবুল হাশেম এর পুত্র। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সেনবাগ থানার এসআই সাইফুল ইসলাম ও এএসআই বাবুল সরকার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দক্ষিণ রাজারামপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।
সেনবাগ থানার ওসি হারুন অর রশিদ চৌধুরী ব্যবসায়ী হত্যার ঘটনায় জড়িত ছালা উদ্দিনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে রবিবার বলেন, ব্যাপক পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের চাঞ্চল্যকার তথ্য পাওয়া গেছে। নৃশংস হত্যার ঘটনায় ছালা উদ্দিনসহ ৭/৮ জন জড়িত। সকলেই নেশাগ্রস্থ। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ধামা ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডে ছালা উদ্দিন সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট একেএম রৌশন জাহান এর আদালতে ধৃত আসামী ছালা উদ্দিন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী রেকর্ড শেষে তাকে নোয়াখালী কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
উলেখ্য, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং ফজরের নামাজের আগে বীজবাগ ইউপির বীরনারায়ণপুর গ্রামের মৃত আবদুল হালিম মেম্বারের পুত্র ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলমকে অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা নৃশংসভাবে হত্যা করে রাস্তার পাশে লাশ ফেলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সেনবাগ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের নিকট লাশটি হস্তান্তার করা হয়। এ ঘটনায় সেনবাগ থানায় হত্যা মামলা নং- ১৭ তারিখ- ৩০/১২/২০১৭ইং দায়ের হয়েছে।

Previous
Next