Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

সেনবাগে সিএনজি চালক হত্যায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

Closed

প্রতিবেদক : নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের মোমিন মাষ্টারের বাড়ী এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিকসা চালক ইয়াকুব হত্যার ঘটনায় ৪জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।
বুধবার দুপুরে নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের বিজ্ঞ দায়রা জজ মো. আব্দুল কুদ্দুস মিয়া এ রায় প্রদান করেন।
যাবজ্জীবন কারাদন্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের আব্দুল মোতালেবের ছেলে মো. বেলায়েত হোসেন প্রকাশ সাহাব উদ্দিন, একই গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে মো. শাহজাহান মিরাজ হিরণ, বসু সিকদারের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল ওয়াদুদ অদু মিয়ার ছেলে নুরুল ইসলাম নবী।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, সোনাইমুড়ী উপজেলার পাশ্ববর্তী কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোর্ট উপজেলার বাসিন্দা ও গাড়ির পার্টস ব্যবসায়ী মো. হুমায়ূন কবিরের একটি সিএনজি অটোরিকসা ভাড়া চালাত চালক ইয়াকুব। ২০১১ সালের ১৮এপ্রিল নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের তেমুহনী সংলগ্ন মোমিন মাষ্টারের বাড়ীর পশ্চিম পাশে সড়কে পূর্বপরিকল্পিতভাবে যাত্রীবেশে ইয়াকুবের সিএনজিতে উঠে দন্ডপ্রাপ্তরা। এসময় তারা সিএনজি থামিয়ে ইয়াকুবকে কুপিয়ে জখম করে রাস্তার পাশে ফেলে সিএনজিটি নিয়ে পালিয়ে যায়।
পরে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় চালক ইয়াকুবকে উদ্ধার করে স্থানীয় ইনসাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অপরদিকে সিএনজি অটোরিকসা নিয়ে পালানোর সময় সেনবাগের ছাতারপাইয়া বাজারে স্থানীয় লোকজন সাহাব উদ্দিন ও হিরনকে সিএনজিসহ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এসময় অপর দু’জন নুরুল ইসলাম ও জাহাঙ্গীর আলম পালিয়ে যায়।
ঘটনায় ১৯এপ্রিল সিএনজি অটোরিকসার মালিক মো. হুমায়ন কবির বাদী হয়ে চার জনকে আসামী করে সেনবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
বুধবার দুপুরে উভয়পক্ষের আইনজীবীদের দীর্ঘ শুনানী, স্বাক্ষ্য প্রমাণ ও যুক্তিতর্ক শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় আদালত ৪আসামীকে যাবজ্জীন কারাদন্ড প্রদান করেন।
রায়ের সময় আসামী মো. বেলায়েত হোসেন, মো. শাহজাহান মিরাজ হিরণ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর দুই আসামী জাহাঙ্গীর আলম ও নুরুল ইসলাম নবী পলাতক থাকায় তাদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, পিপি এ্যডভোকেট এটিএম মহিব উল্লাহ।
আসামীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এ্যডভোকেট রফিকুল ইসলাম।

Previous
Next