Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

সৎ বাবার লালসার শিকার হয়েছিলেন পদ্মলক্ষী

সৎ বাবার লালসার শিকার হয়েছিলেন পদ্মলক্ষী

Closed
by September 26, 2018 বিনোদন

মাত্র ১৬ বছর বয়সেই জীবনের সবচেয়ে বেদনাদায়ব ঘটনা ঘটেছিলো তার সঙ্গে। সৎ বাবার হাতে যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন। সেই ঘটনার দুঃসহ স্মৃতি তিনি আজও বয়ে বেড়াচ্ছেন। তার কষ্ট হয়, কান্না আসে। লজ্জায়, হতাশায়। দীর্ঘ ৩২ বছর পর মুখ খুলে এমনটাই জানালেন আমেরিকান মডেল পদ্মলক্ষ্মী।

এই পদ্মলক্ষী ভারতীয় লেখক সালমান রুশদির প্রাক্তন স্ত্রী। সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে এসে নিজের জীবনের অনেক না বলা কথা জানিয়েছেন।

পদ্মলক্ষ্মী বলেন, তারা তখন লস এঞ্জেলসের শহরতলিতে থাকতেন। সেখানে থাকাকালীন বছর ২৩-এর এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। ওই যুবকের সঙ্গে ডেটিংও শুরু করেন। কিন্তু ওই যুবকের সঙ্গে ডেটিং শুরু করার কয়েকদিনের মধ্যেই তাকে ধর্ষণ করেন ওই যুবক। কোনও এক নববর্ষের বিকেলে ভালবাসার মানুষের হাতে তাকে ধর্ষিত হতে হয়েছিলো।

একপর্যায়ে সৎ বাবার আচরণ নিয়েও মুখ খোলেন পদ্মলক্ষ্মী। তিনি বলেন, মাত্র ৭ বছর বয়স থেকে যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয় তাকে। মায়ের অনুপস্থিতিতে সৎ বাবা তার শরীরের যে কোনো জায়গায় স্পর্শ করতেন। মাকে সেই কথা জানাতেই, তাকে ভারতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। প্রায় এক বছর ধরে পদ্মলক্ষ্মীকে ভারতে তার দাদু, ঠাকুমার সঙ্গে থাকতে হয়।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি বুঝতে পেরেছিলাম ওই ঘটনায় আমার মায়ের মন খারাপ হয়েছিলো। তিনি আমার নিরাপত্তার অভাব বোধ করছিলেন। তবে তিনি লোক লজ্জার ভয়ে মুখ খুলেননি। আমাকেই দূরে সরিয়ে দিলেন।

‘ভার্জিন’ অবস্থায় তাকে যেভাবে যৌন হেনস্থার মুখোমুখি হতে হয় এবং ধর্ষিত হতে হয়, তা ভাবলে এখনও শিউরে ওঠেন। কিন্তু, ভবিষ্যত প্রজন্মকে যাতে কোনওভাবে এইসব ভয়াবহ অভিজ্ঞতার শিকার না হতে হয় সেই প্রার্থনাও করেন পদ্মলক্ষ্মী।

Previous
Next