Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

হাসি দিয়ে শুরু ‘একটি সিনেমার গল্প’

হাসি দিয়ে শুরু ‘একটি সিনেমার গল্প’

Closed
by September 10, 2017 বিনোদন

গতকাল থেকে শুরু হয়েছে চিত্রনায়ক ও পরিচালক আলমগীরের নির্দেশনায় ‘একটি সিনেমার গল্প’ চলচ্চিত্রের শুটিং। দুপুর দেড়টায় বিএফডিসির চার নম্বর ফ্লোরে একটি দৃশ্য ধারণের মধ্য দিয়ে নতুন এ চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হয়। শুটিং শুরুর আগে বিসমিল্লাহ পড়ে চলচ্চিত্রটির শুভযাত্রা করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা ও বিশিষ্ট অভিনেতা, নির্দেশক সৈয়দ হাসান ইমাম। এ সময় ঘটেছে একটি মজার ঘটনা। চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ লম্বায় ৬ ফুট ১ ইঞ্চি। দাঁড়িয়ে আছেন উপমহাদেশের কিংবদন্তি গায়িকা রুনা লায়লার পাশে। হঠাৎ তার টিপ্পনীÑ ‘এত লম্বা নায়কের পাশে দাঁড়ানো সমস্যা!’ পড়ে গেল হাসির রোল। শুভও কম যান না। রুনার স্বামী অভিনেতা-নির্মাতা আলমগীরকে উদ্দেশ করে বলে দিলেন, ‘স্যার কিন্তু সেই সময়ের সবচেয়ে লম্বা মানুষ। আমারই শুধু দোষ!’

শুটিং শুরুর আগে উপস্থিত ছিলেন আঁখি আলমগীর, ওপার বাংলার ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত এবং আঁখি আলমগীরের দুই কন্যা স্নেহা ও আরিয়া প্রমুখ। ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছবির শুটিং চলবে বলে জানান আলমগীর। এ চলচ্চিত্রের কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্য রচনা করেছেন আলমগীর নিজেই। এতে আলমগীরের বিপরীতে অভিনয় করবেন চম্পা। চিত্রগ্রহণে আছেন আসাদুজ্জামান মজনু। এ ছবির জন্য রুনা লায়লা গান সুর করেছেন এবং গেয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘এ ছবির জন্য রইল শুভ কামনা। এর মধ্য দিয়েই একজন সুরকার হিসেবে আমার অভিষেক হলো। গানটি লিখেছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার এবং গেয়েছেন আঁখি আলমগীর। ছবির অন্য গানগুলোও বেশ চমৎকার। সব মিলিয়ে সুন্দর গল্পের একটি সিনেমা হবে এটি।’ সৈয়দ হাসান ইমাম বলেন, ‘গল্পটা আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে। আলমগীর নির্দেশক হিসেবে পরীক্ষিত একজন। আশা করছি এটি অতীতের চেয়েও আরও অনেক বেশি ভালো মানের একটি সিনেমা হবে।’ আরিফিন শুভ বলেন, ‘জীবনের প্রথম একই ফ্রেমে আলমগীর স্যারের সঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছি। তাও আবার তারই নির্দেশিত চলচ্চিত্রে। এটা আমার জন্য, আমার অভিনয় ক্যারিয়ারের জন্য অনেক বড় একটি অর্জন বলেই আমি বিবেচনা করছি। আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা দিয়ে নিজের চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করব।’ ওপার বাংলার জনপ্রিয় নায়িকা ঋতুপর্ণা বলেন, “এর আগে আলমগীর স্যারের সঙ্গে একটি চলচ্চিত্রে কাজ করেছি। তিনি অনেক বড় মাপের একজন অভিনেতা। বহু বছর পর তার নির্দেশনায় এবার কাজ করতে যাচ্ছি। আবার তার সঙ্গে একই ফ্রেমে অভিনয়ও করব। তাই ভীষণ ভালোলাগা কাজ করছে। এফডিসিতে এসে পুরনো দিনের অনেক কিছুই মনে পড়ছে। মনে পড়ছে নায়করাজ রাজ্জাক স্যারের কথা, মান্নার কথা। সব মিলিয়ে ‘একটি সিনেমার গল্প’ আমার কাছে স্মৃতি হাতড়ে ফেরার কাজও বটে। আশা করছি খুব ভালো একটি সিনেমাই হবে এটি।” সব শেষে আলমগীর বলেন, ‘ছবিটি এখানকারই সিনেমার গল্প নিয়ে। পুরো ছবির শুটিং বাংলাদেশেই হবে।’

Previous
Next