Designed by shamsuddin noman

Skip to Content

৩’শ ভূমিহীন পরিবারকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালাচ্ছে ভূমিদস্যুরা

৩’শ ভূমিহীন পরিবারকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালাচ্ছে ভূমিদস্যুরা

Closed

রামগতি (লক্ষ্মীপুর ) প্রতিনিধি:: লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চর পোড়াগাছা মৌজার  পোড়াগাছা আশ্রয়ন, সৈকত আবাসন, কলমিলতা আবাসন ও ভূলুয়া আবাসন প্রকল্পে বসবাসরত ৩’শ ভূমিহীন পরিবারকে উচ্ছেদ করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে স্থানীয় ভূমিদস্যুরা।

নোয়াখালী  সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার বরাবর দেয়া এক অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চর পোড়াগাছা মৌজার দিয়ারা ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত ভূমিতে সরকার ১৯৯৯-২০০০ সনে পোড়াগাছা আশ্রয়ন, ২০০৫-২০০৬ সনে সৈকত আবাসন, ২০০৮-২০০৯ সনে কলমিলতা আবাসন ও ভূলুয়া আবাসন প্রকল্প তৈয়ারী করে উক্ত আবাসন গুলোতে ৩’শ নদীভাঙ্গা ভূমিহীন পরিবারকে বন্দোবস্ত প্রদান করেন এবং সরকারি ভাবে ঘরবাড়ী নির্মান করে ভূমিহীন পরিবারকে বসবাস করার ব্যবস’া করেন। বন্দোবস্ত পাওয়ার পর থেকে তারা শান্তিপূর্নভাবে বসবাস করছে।

২০০৪ সানে দিয়ারা জরিপের ১নং খাস খতিয়ানের ১১৩ দাগে নতুন বাজার ও ৭৮২,৭৮৩,৭৮৪ দাগে পোড়াগাছা গুচ্ছগ্রাম বাজার নামে দু’টি বাজার প্রতিষ্ঠিত হয়। যাহা ১৪২৪ বাংলা সন পর্যন্ত সরকার ইজারা দিয়েছেন।

বর্তমান রিভিশন জরিপে স্থানীয় ভূমিদস্যূ ইউছুফগংরা সেটেলমেন্ট অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তার সহায়তায় দিয়ারা ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত এবং ভূমিহীন পরিবারকে বন্দোবস্তকৃত ভূমি তাদের নামে রেকর্ড করে নেন এবং ভূমিহীন পরিবারের দখল উচ্ছেদ করতে তারা নানাভাবে হয়রানী করছে।

ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ভুমিহীন আবদুল খালেক, মোঃ আমির হোসেন, মোঃ জসিম উদ্দিন ও মোঃ সেলিম নোয়াখালী  সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসরের কাছে চর পোড়াগাছা মৌজার ২৯৫, ৩৪৫, ৫৭৬, ৫৭৯, ১৫২০, ১৭২৪ নং ডিপি খতিয়ান বাতিল করে দিয়ারা ১নং খাস খতিয়ান ভুক্ত ভূমি বন্দোস্তপ্রাপ্ত ভূমিহীনদের নামে খতিয়ান করার জন্য আবেদন করেও তারা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে

Previous
Next