নোয়াখালীনোয়াখালীর খবর

সোনাইমুড়ীতে থানার সামনে আ’লীগের দু’গ্রুপের গোলাগুলি,ওসি সহ আহত -১২, গুলিবিদ্ধ-১; আটক – ৩

প্রতিবেদক : নোয়াখালী সোনাইমুড়ীতে কয়েকদিনের চলমান আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের জের ধরে সোনাইমুড়ি থানায় শালিসি বৈঠকের সময় গোলাগুলি ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ১২ জন ও আটক করা হয়েছে ৩ জনকে।

জানা যায়,গত কয়েকদিন ধরে নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের নবনির্বাচিত সহ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম ও স্থানীয় এমপি এইচ এম ইব্রাহীম গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে আসছে।

গত কাল মঙ্গলবার বড় ধরনের সংঘর্ষ ঘটলে সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস ছামাদ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে উভয় পক্ষকে বুধবার রাতে শালসি বৈঠক ডেকে সমাধানের আশ্বাস দেন।
পরে বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে বৈঠক শুরু হওয়ার সময় অন্য আরেকটি গ্রুপের ১৫-২০ জনের একটি গ্রুপ এসে কোন কিছু বোঝার আগেই এলোপাতাড়ি ককলেট, বোমা ও গোলাগুলি শুরু করে।

এতে সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস ছামাদ ও কনটেস্টেবল জসিমউদদীন সহ চার পুলিশ সদস্য হয়। একই সাথে উপজেলা সেচ্চাসেবকলীগের আহ্বায়ক আবু সায়েম সহ আহত হয়েছে ১২ জন। একই সময় বিপ্লব (২৫) নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলে ও এ মুহুর্তে পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে।

অন্য একটি সূত্র জানায় আগামী পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দু গ্রুপের একটি মহড়া প্রদর্শন করতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে সোনাইমুড়ী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস সামাদকে একাদিকবার ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। এর আগে গতকাল সংর্ঘষের ঘঠনায় তিনি থানায় বসে বিষয়টি নিষ্পত্তির আশ্বাস দিলে আজকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close