লাইফ ষ্টাইল

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যেসব খাবার খাবেন

করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভুগছে পুরো বিশ্ব। মাত্র গতকালই এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলো আমাদের দেশেও। আমাদের সচেতনতা পারে এই ভাইরাসকে রুখে দিতে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী হলে করোনাভাইরাসের কাছে ঘায়েল হতে হবে না। বরং লড়াই করার শক্তি থাকবে। তাই এমন সব খাবার খান যা আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে। চলুন জেনে নেয়া যাক কোন খাবারগুলো খাবেন-

কমলা: ভিটামিন সিতে ভরপুর কমলা। প্রতি ১০০ গ্রামের মধ্যে ৫০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকে। প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস কমলার রস পান করলে দিনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি-এর অভাব পূরণ হয়।

ডার্ক চকোলেট: ডার্ক চকোলেটে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। তবে এতে যেহেতু ফ্যাট ও ক্যালরি থাকে তাই এটি পরিমিত পরিমাণ খাওয়া উচিত।

কপি: কপি জাতীয় যেকোনো সবজিই আমাদের স্বাস্থ্যের জন্যে উপকারী। বাঁধাকপি কিংবা ফুলকপি রাখুন আপনার খাবারের তালিকায়। শুধু ভিটামিন এ, সি এবং ই রয়েছে কপিতে তা নয়, রয়েছে ‘পলিফেনল’। রান্নার সময় কপি পুরো সেদ্ধ না করে আধা সেদ্ধ করবেন। এতে পুরো খাদ্যগুণ বজায় থাকে।

হলুদ: হলুদে বিভিন্ন ধরনের ওষুধি গুণ রয়েছে। হলুদ খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। গবেষণায় দেখা গেছে, কাঁচা হলুদে কারকুমিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমৃদ্ধ একটি উপাদান রয়েছে যা রোগ প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।

সামুদ্রিক মাছ: সামুদ্রিক মাছ অনেকের কাছেই প্রিয়। স্বাদ ও গন্ধের পাশাপাশি এই মাছের আছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা। ওমেগা থ্রি সমৃদ্ধ সামুদ্রিক মাছ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই পাতে রাখুন সামুদ্রিক মাছ।

ব্রকলি: সবুজ এই সবজিটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ উপকারী। ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও রোগ প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।

চা: গ্রিন টি, ব্ল্যাক টি এবং হোয়াইট টি স্বাস্থ্যের জন্যে বেশ উপকারী। এতে থাকা ‘পলিফেনল’ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া গ্রিন টিতে থাকা ‘অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট’ যা রোগ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।

মিষ্টি আলু: মিষ্টি আলুতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমৃদ্ধ বিটা ক্যারোটিন রয়েছে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই খাবারের তালিকায় থাকুক মিষ্টি আলু।

পালং শাক: পালং শাকে আছে ভিটামিন সি, ই, ফ্লাভোনয়েডস এবং ক্যারোটিনয়েডস যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভীষণ কার্যকরী।

দুধ ও দই: দুধ এবং দইয়ে আছে ‘ল্যাকটিক অ্যাসিড’ ব্যাকটেরিয়া, যা পেট বা অন্ত্র পরিষ্কার রাখে। এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তবে কৃত্রিম উপায়ে তৈরি বা মিষ্টি দই না খেয়ে প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি টক বা সাদা দই খাবেন।

মুরগির স্যুপ: মুরগির স্যুপ খেলে শ্বাসনালীর কষ্ট দূর হয়। এছাড়া গরম স্যুপের ভাপ গলার খুসখুসে ভাব কমিয়ে দেয়।

রসুন: রসুনে রয়েছে আঁশ, ফলিক অ্যাসিড, ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন ও প্রোটিন। এছাড়া রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর মতো ‘অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট’, ‘সেলেনিউম’সহ বেশ কয়েকটি উপাদান। নিয়মিত রসুন খাওয়া পাকস্থলীর নানা সমস্যা, অর্থাৎ ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক থেকে রক্ষা করে। প্রতিদিন দুই বা তিন কোয়া কাঁচা রসুন থেতলে বা অল্প গরম করে খেলে উপকার মিলবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close