লক্ষ্মীপুর

রামগঞ্জে অবরুদ্ধ নারী উদ্যোগতাকে উদ্ধার

রামগঞ্জ (লক্ষীপুর) প্রতিনিধিঃ লক্ষীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার টিওরী স্বাস্থ্য পরিবার কল্যান কেন্দ্র থেকে রোববার রাতে অবরুদ্ধ নারী উদ্যোগতা দুর্গা রানী সাহাকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে একটি মহল উঠে পড়েছে।
সুত্রে জানায়,উপজেলার ইছাপুর ইউপি কার্যালয়ের তথ্য কেন্দ্রের নারী উদ্যোগতা দুর্গা রানী সাহার সাথে টিওরী স্বাস্থ্য পরিবার কেন্দ্রের ভিজিটর কাউছারুল জান্নাতের স্বামী মোঃ সুমন হোসেনের দীর্ঘ দিন যাবত পরকিয়া চলে আসছে। এরি জের ধরে দুর্গা রানী সাহা রোববার সন্ধ্যায় ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রবেশ করলে বাজার ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে ভিজিটরের বাসার কক্ষে অবরুদ্ধ করে।

দীর্ঘ ৩ঘন্টা অবরুদ্ধ থাকার পর পুলিশ উপস্থিত হয়ে নারী উদ্যোগতা দুর্গা রানী সাহাকে উদ্ধার করলেও সুমন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। টিওরী বাজার ব্যবসায়ী সহেল ভূইয়াসহ কয়েকজন বলেন,দুর্গা রানীর স্বামী লিটন নন্দী একটি প্রাইভেট আর্থিক প্রতিষ্ঠানে চাকরী করে। লিটনের বাড়ি নোয়াখালীর মাইজদী আর দুর্গা রানীর বাড়ি ইছাপুর ইউপির দক্ষিন নারায়নপুর গ্রামের গোপাল ডাক্তারের বাড়ি হলেও দীর্ঘ কয়েক মাস যাবত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আসা-যাওয়া করে। এতে বিষয়টি সবার নজরে পড়ে।

স্বাস্থ্য পরিবারে কেন্দ্রের ভিজিটর প্রশিক্ষনে ঢাকাকে অবস্থান করলেও তার স্বামী সুমন একাই ভিজিটরের নামে বরাদ্ধ থাকা বাসাতে অবস্থান করছে। দুর্গার স্বামী লিটন নন্দী আবেপ্লবল হয়ে বলেন,কয়েক মাস পুর্বেও রামগঞ্জ বাইপাস সড়কে অবস্থিত একটি হোটেলের কক্ষে অন্য পুরুষের সাথে আড্ডা দেওয়ার সময় আমি নিজেই আটক করি। আমি এবং তার পিতার বাড়ির থেকে ২৫/২৬ কিলোমিটার দুরে গ্রামাঞ্চলে অবস্থিত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বেচ্ছায় উপস্থিত হলে গ্রামবাসী আটক করে। পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করতে হচ্ছে। এব্যাপারে জানতে চাইলে নারী উদ্যোগতা দুর্গা রানী সাহা বলেন,যা ঘটেছে,তা সম্পূর্ন র্পাসোনাল ব্যাপার।

পুলিশের কাছে সবকিছু বলেছি,আপনাদের (সাংবাদিক) সাথে কথা বলার প্রয়োজন নেই। ইছাপুর ইউপি চেয়ারম্যান সহিদ উল্যাহ বলেন,নারী উদ্যোগতা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যাওয়ার কিছুক্ষন পরেই সম্মিলিত গ্রামবাসী ভিজিটরের থাকার কক্ষ থেকে ভিজিটরের স্বামীসহ অবরুদ্ধ করে রেখেছে। পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করেছে,মোবাইল ফোনে লোকজনে জানিয়েছে।

থানার ওসি মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন,নারী উদ্যোগতাকে উদ্ধার একই সাথে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close