নোয়াখালীনোয়াখালীর খবর

তৃতীয়বারের মতো কবিরহাট পৌরসভায় দলীয় মনোনয়ন পেলেন রায়হান

 

 প্রতিবেদক :তৃতীয়বারের মতো কবিরহাট পৌরসভার আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন পেলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক রায়হান । গতকাল গণভবনে অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড এ সিদ্ধান্ত প্রদান করে. এই সংবাদ এলাকায় পৌঁছামাত্রই মাগরিবের পরে শত শত জনতা  কবিরহাট বাজারে আনন্দ মিছিল বের করে.। তারা পরস্পর পরস্পরকে মিষ্টিমুখ করায়। নেতাকর্মীরা ছাড়াও আনন্দ মিছিলে অংশ নেন কবিরহাট বাজারের ব্যবসায়ীরাসহ আমজনতা। এই পৌরসভা থেকে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন  জহিরুল হক রায়হান, সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল বেলালের ছোট ভাই রেজাউল হক শাহীন আওয়ামী লীগ নেতা রতন। সম্প্রতি সময়ে নোয়াখালীর রাজনৈতিক ঘটনাবলীর অনেকেই মনে করেছিলেন কবিরহাট পৌরসভায় এবারে মেয়র পদে মনোনয়ন পরিবর্তন হতে পারে। না অনেকের ধারণা কে পিছনে ফেলে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন বোর্ড কবিরহাট এর উন্নয়নের কারিগর তরুণ রাজনীতিবিদ জহিরুল হক রায়হান কেই বেছে নিলেন। জহিরুল হক রায়হান প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন ২০১১ সালে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগ এর একটি অংশ জহিরুল হক রায়হান এর তীব্র বিরোধিতা করলেও দ্বিতীয়বারের মতো তার মনোনয়ন ঠেকাতে পারেনি। তৃতীয়বারের মতো মেয়র পদে মনোনয়ন লাভে এক প্রতিক্রিয়ায় জহিরুল হক রায়হান নোয়াখালী প্রতিদিনকে বলেন, আমি দীর্ঘ তিন দশক এর উপরে এই এলাকার মাটি ও মানুষের সাথে মিশে আছে। আমার নেতা ওবায়দুল কাদেরের নির্দেশে যেকোনো সময়ে যেকোনো পরিস্থিতিতে আমি দলের নেতা-কর্মী তথা এলাকার জনগণের পাশে ছিলাম  যার পুরস্কারস্বরূপ আমার  নেতা আমাকে মূল্যায়ন করেছেন। আমাকে দলীয় মনোনয়ন প্রদান করার জন্য আমি দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আমার নেতা আমার অভিভাবক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদেরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমার নেতা আমাকে যে মূল্যায়ন করেছেন পৌরসভার সেবার মান বৃদদি করে নেতার প্রতি শ্রদ্ধা প্রমাণ করব। জহিরুল হক রায়হান এ প্রসঙ্গে আরো বলেন, দলের নেতাকর্মীসহ পৌরবাসী অতীতে যেভাবে আমাকে সমর্থন সহযোগিতা দিয়ে এসেছে আমি মনে করি আগামীতেও তারা আমাকে সেভাবে  আমার সাথে থাকবেন। সব সময় আমার সাথে থাকার জন্য পৌরবাসী সহ নেতাকর্মীদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close