বিশেষ সংবাদ

জলবায়ু হুমকি মোকাবিলায় অংশীদারদের জড়িত থাকা প্রয়োজন

জলবায়ু পরিবর্তনজনিত হুমকি মোকাবিলায় প্রাথমিক পর্যায় থেকেই প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রক্রিয়ায় অংশীদারদের জড়িত থাকা প্রয়োজন বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

সোমবার (১৯ আগস্ট) দক্ষিণ কোরিয়ার ইনচিয়নের স্যাংডোতে গ্লোবাল ক্লাইমেট ফান্ড (জিসিএফ) ‘গ্লোবাল প্রোগ্রামিং কনফারেন্সে’ তিনি এ কথা বলেন। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পাঁচদিনের এ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের নেতৃত্বে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) সচিব মনোয়ার আহমেদসহ বাংলাদেশ থেকে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। এছাড়া ১০টি দেশের মন্ত্রী, উচ্চ পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা, থিঙ্ক ট্যাঙ্কস, সিএসও, এনজিওর কর্মীরা অংশ নিয়েছেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব আজ জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে হুমকির সম্মুখীন। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে উদ্ভুত বহুবিধ প্রভাবের মুখোমুখি হয়ে বিশ্বের ভবিষ্যৎ হুমকির মধ্যে রয়েছে।

জলবায়ু পরিবর্তন জনিত হুমকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক এখন পর্যন্ত নেয়া নানা পদক্ষেপ ও কার্যক্রম সংক্ষেপে বর্ণনা করেন অর্থমন্ত্রী।কার্যকর ফলাফল অর্জনের জন্য প্রাথমিক পর্যায় থেকেই প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রক্রিয়ায় অংশীদারদের জড়িত থাকার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন তিনি।

সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীরা কিভাবে তাদের দেশের জলবায়ু পরিবর্তনজনিত হুমকির সম্মুখীন হচ্ছেন এবং মোকাবিলায় কী ধরনের পদক্ষেপ নিতে চাচ্ছেন সে বিষয়গুলে তুলে ধরেন। স্বীকৃত সংস্থাগুলোর প্রধানরা তুলে ধরেন যে, তারা কীভাবে দেশগুলোকে জিসিএফ সমর্থন দিয়ে এ উচ্চাকাঙ্ক্ষাগুলো উপলব্ধি করতে সহায়তা করবে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে ১৯ থেকে ২৪ আগস্ট গ্লোবাল প্রোগ্রামিং কনফারেন্সে শুরু হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে উদ্ভুত বহুবিধ প্রভাবকে টেকসইভাবে সমাধানের জন্য অংশীদার দেশগুলোকে সমর্থন করার উপায় এবং পথ বের করাই এ সম্মেলনের উদ্দেশ্য। সম্মেলনের এ বছরের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘জলবায়ুর উচ্চাকাঙ্ক্ষাকে উপলব্ধি করা’।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close