আন্তর্জাতিক

কাশ্মীর ইস্যুতে আবারও মধ্যস্থতা প্রস্তাব ট্রাম্পের

আবারও কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা প্রস্তাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত এক মাসে এ নিয়ে তৃতীয়বার কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিলেন তিনি। গত মঙ্গলবার প্রথমে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পরে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে ফোনে কথা হয় ট্রাম্পের।

তারপরেই তিনি দুই দেশকে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনায় বসার আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে তিনি এটাও বলেছেন যে, দু’দেশ চাইলে তিনি এ বিষয়ে মধ্যস্থতা করতে চান। দুই নেতার সঙ্গে আলোচনার পর এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমার দুই ভালো বন্ধু ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে কথা বললাম।

তিনি বলেন, বাণিজ্য, কৌশলগত অংশীদারি এবং সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়ে ভারত ও পাকিস্তানকে কাশ্মীরে উত্তেজনা হ্রাসের জন্য কাজ করতে বললাম। কঠিন পরিস্থিতি, কিন্তু ভালো আলাপ হয়েছে।’

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আরও বলেন, দু’দেশের মধ্যে ভয়ানক সমস্যা চলছে। আমি আমার তরফ থেকে যতটা সম্ভব চেষ্টা করব দু’দেশের মধ্যে মধ্যস্থতা করার। দুই দেশের সঙ্গেই আমাদের দারুণ সম্পর্ক। কিন্তু এই মুহূর্তে তারা নিজেরা একে অপরের বন্ধু নয়।

শুধু তাই নয়, এ বিষয়ে এ সপ্তাহের শেষে জি-সেভেন শীর্ষ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা বলবেন বলেও জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি বলেন, এ সপ্তাহের শেষে আমি এবং প্রধানমন্ত্রী মোদি ফ্রান্সে কথা বলব। আমার মনে হয়, পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে আমরা সাহায্য করছি।

তবে কাশ্মীর ইস্যুতে তৃতীয় কোনও শক্তির মধ্যস্থতা চায় না নয়াদিল্লি। কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তীণ বিষয় বলে বরাবরই বাইরের দেশের হস্তক্ষেপের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে পাকিস্তানের সঙ্গে পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা হতে পারে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, এবার আলোচনা হলে শুধু পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close